সুচিত্রা মিত্র – ৯২ // ফাল্গুনী মুখোপাধ্যায়

১৯৭১ সালের ডিসেম্বর। নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ শেষে স্বাধীন হতে চলেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আত্মসমর্পণ স্রেফ সময়ের ব্যাপার । কলকাতায় পাকিস্তান দূতাবাসের সামনে উড়ছে বাংলাদেশের পতাকা। সেদিন পতাকার নিচে সার বেঁধে দাঁড়িয়েছেন কয়েকজন। সবাই গাইছেন বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত, ‘আমার সোনার… Continue Reading

বিশ্বকর্মা পুজো // ঈশানী রায়চৌধুরী

আজ বিশ্বকর্মা পুজো। প্রবাসে বুঝি না। আকাশটা কেমন ন্যাড়াবোঁচা মতো। ফিকে নীল পাটভাঙা শাড়ি পরেছে, মিহি জমিনে সাদা ফুলছাপ, কিন্তু কপালে টিপ পরেনি যেন। এই মুহূর্তে কলকাতার আকাশ কেমন? পেটকাটি চাঁদিয়াল লাল-নীল-সবুজ-কালোর মেলা? সরু সাদা ফিনফিনে কাগজের ল্যাজওয়ালা ঘুড়ি উড়ছে?… Continue Reading

নব্য ললনা // দেবজ্যোতি ভট্টাচার্য

ধুতির সঙ্গে বুটজুতো? কিংবা দামি হোটেলের সুটপরা বাবু বেয়ারাকে বাংলায় অর্ডার দেওয়া? ইমপসিবল। পুরুষের পক্ষে। তবে আমাদের শ্রীমতীকূল এ ব্যাপারে অনেক বেশি ইনহিবিশনমুক্ত। সকালে উল্টোডাঙা স্টেশনে দেখি একজন চলেছেন। কানে নকল সোনার ঝুমকোদুলের ওপরেই ময়ূরকণ্ঠী রঙের ব্লুটুথ ইয়ারবাড। বায়োলজি বিজ্ঞানের মোটকা… Continue Reading

বুলুকাকা // মানস নাথ

তখন পাড়ায় পাড়ায় চার দশের টুনার্মেন্ট খুব হত। মানে ছোট মাঠ ছোট বারপোস্টের আন্ডার হাইট ফুটবল টুর্নামেন্ট। প্রতিযোগীদের উচ্চতা চার ফুট দশ ইঞ্চির বেশি হবে না। শনি-রবিতে খেলা, জিতলে টাকা আর মাংস ভাত। এইসব দলে শিংভাঙা কিছু বাছুর থাকত যাদের… Continue Reading

রীপের গল্প // অপূর্ব নাথ

রাতের খাওয়ার পর রীপ খবরের কাগজ মেঝেয় ছড়িয়ে ছবি দেখছিল। এই কম্মোটি উনি প্রায় দিনই করে থাকেন। খবরের কাগজ নিয়ে খেলা। ছবি দেখার সঙ্গে সঙ্গে হেডলাইনগুলো মাঝে-মধ্যে পড়েও ফেলে। এটা-ওটা জিগ্যেস করে। আজ প্রশ্ন এল, “সন্ধান কী ?” আমি বললুম, “খোঁজ।” “কী… Continue Reading

শিক্ষক দিবস // আষিক

তখন বেশ ছোট আমি – বোধ হয় গাড়ি করে মুর্শিদাবাদ যাচ্ছিলাম। একটা ধানক্ষেতের পাশ দিয়ে ছুটে যাচ্ছে আমাদের কালো মরিস অক্সফোর্ড – বাবা হেমন্তের গান ‘ফেলে আসা দুটি কথা তার ভোলা শুধু হল না আমার’-এর সঙ্গে গলা মিলিয়ে পৌঁছে গেছে… Continue Reading