স্যর তারাপদ রায় // বিমোচন ভট্টাচার্য

দু হাজার সালে আমাদের সল্টলেক ব্রাঞ্চ ওপেন হয়। আগের কুড়িদিন আর পরের কুড়িদিন আমাকে ওখানে ডেপুটেশনে পাঠানো হল। ওপেন হল ব্রাঞ্চ। কিন্তু আমি ফিরে এলাম আমার পুরোনো ব্রাঞ্চে। দু হাজার তিন-এ আবার আমাকে ওখানে পাঠানো হল। কাজ করছি। আস্তে আস্তে… Continue Reading

এচ এম টি // ঈশিতা ভাদুড়ী

আগে এচ এম টি কোম্পানির ঘড়ি ব্যবহার করতো সবাই। আমারও একটা ছিল। বেশ বড়সড় গোদা দেখতে। তখন টাইটান কোম্পানির জন্ম হয়নি। আমার ওই এচ এম টি ঘড়িটা দেখতে মোটেই সুশ্রী ছিল না। কিন্তু কেন জানি না একটি শিশুর খুব আকর্ষণ… Continue Reading

বিশ্বকর্মা পুজো // ঈশানী রায়চৌধুরী

আজ বিশ্বকর্মা পুজো। প্রবাসে বুঝি না। আকাশটা কেমন ন্যাড়াবোঁচা মতো। ফিকে নীল পাটভাঙা শাড়ি পরেছে, মিহি জমিনে সাদা ফুলছাপ, কিন্তু কপালে টিপ পরেনি যেন। এই মুহূর্তে কলকাতার আকাশ কেমন? পেটকাটি চাঁদিয়াল লাল-নীল-সবুজ-কালোর মেলা? সরু সাদা ফিনফিনে কাগজের ল্যাজওয়ালা ঘুড়ি উড়ছে?… Continue Reading

বুলুকাকা // মানস নাথ

তখন পাড়ায় পাড়ায় চার দশের টুনার্মেন্ট খুব হত। মানে ছোট মাঠ ছোট বারপোস্টের আন্ডার হাইট ফুটবল টুর্নামেন্ট। প্রতিযোগীদের উচ্চতা চার ফুট দশ ইঞ্চির বেশি হবে না। শনি-রবিতে খেলা, জিতলে টাকা আর মাংস ভাত। এইসব দলে শিংভাঙা কিছু বাছুর থাকত যাদের… Continue Reading

শিক্ষক দিবস // আষিক

তখন বেশ ছোট আমি – বোধ হয় গাড়ি করে মুর্শিদাবাদ যাচ্ছিলাম। একটা ধানক্ষেতের পাশ দিয়ে ছুটে যাচ্ছে আমাদের কালো মরিস অক্সফোর্ড – বাবা হেমন্তের গান ‘ফেলে আসা দুটি কথা তার ভোলা শুধু হল না আমার’-এর সঙ্গে গলা মিলিয়ে পৌঁছে গেছে… Continue Reading