মাসকাবারি কী?

ফেসবুকে প্রতিদিন কত কিছুই না লেখা হয়ে থাকে। মানুষ গল্প লেখেন, কবিতা পোস্ট করেন, বই বা চলচ্চিত্রের আলোচনা-সমালোচনা করেন। আমরা এসবের মধ্যে থেকে মূলত স্মৃতিকথা, পুরোনো দিনের গল্প, হারিয়ে যাওয়া মানুষজন নিয়ে নস্টালজিক পোস্টগুলো বেছে নেব ঠিক করেছিলাম।

তারপর প্রশ্ন উঠল এখনকার গল্পই বা কী দোষ করল?

তাই সংশোধিত লক্ষ্য — মানুষের কথা, মানুষের গল্প ঠাঁই পাবে এই সাইটে।

কিন্তু শুধু ফেসবুকই কেন? কারণ এই মুহূর্তে বাঙালির একটা চলমান ছবি পাওয়া যায় ফেসবুকের পর্দায়।

কিন্তু শুধু বাঙালি কেন? ব্যাপারটা নেহাতই আঞ্চলিক হয়ে গেল না?

আর প্রশ্নের উত্তর দিতে পারি না। বাঙালি কি আর শুধু বাংলাতেই আছে? বাঙালি আদতে আন্তর্জাতিক জনতা। সারা পৃথিবীর বাঙালি স্ট্যাটাস আপডেট আমরা পড়ে উঠতে পারব এমন দাবি করি না। কিন্তু যতটুকু যা করা যায়, যা আমাদের চোখে পড়বে, তার থেকেই নির্বাচিত লেখা আমরা মাসকাবারিতে তুলে আনব। আপনারাও চাইলে ফেসবুকে পোস্ট করার সময় #মাসকাবারি বা #maaskabari ট্যাগ ব্যবহার করে আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারেন। প্রকাশিত লেখাগুলোর লিংক আমাদের ফেসবুক পাতায় নিয়মিত আপডেট করা হবে।

কিন্তু সাইটের নাম মাসকাবারি কেন?

কারণ প্রতি মাসে পোস্ট করা লেখাপত্রের মধ্যে সবথেকে বেশি কমেন্ট পাওয়া পাঁচটি লেখার লেখককে আমরা সামান্য কিছু উপহার দেব। মাসকাবারি এই উপহার পাওয়ার আর কোনও শর্ত নেই।

এই সাইটে প্রকাশিত সব লেখার কপিরাইট কার?

অবশ্যই লেখকের। মাসকাবারি শুধুমাত্র একটা সাইট যেখানে কিছু লেখা একসঙ্গে জড়ো করছি আমরা। যেভাবে ছাতারে তার বাসায় গৃহস্থালীর উজ্জ্বল টুকিটাকি সামগ্রী তুলে আনে।

 

প্রতি বছর এই সাইটের নির্বাচিত লেখা নিয়ে লেখকদের অনুমতিসাপেক্ষে একটি করে সংকলন প্রকাশ করার ইচ্ছায় আমরা গোঁফে তেল দিচ্ছি।